নাজমুল হাসান মিঠু, পাটকেলঘাটা: শ্বশুর ও শ্বাশুড়ির বিচার চেয়ে চিরকুট লিখে সাতক্ষীরার পাটকেলঘাটায় এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন।

গৃহবধূর নাম মৌসুমি সাহা(৩২)। তিনি পাটকেলঘাটা থানার বলরামপুর গ্রামের উৎপল সাহার স্ত্রী।

মঙ্গলবার (২৫আগষ্ট) বিকালে পাটকেলঘাটার পল্লী বিদ্যুৎ রোডের সাহাবাড়ি হতে ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

চিরকুটের লেখা পাঠকের জন্য হুবহু তুলে ধরা হল…….. ‘আমার মৃত্যুর জন্য এক মাত্র দায়ী আমার শশুর শাশুড়ি। দুই জানোয়ার আমাকে বাঁচতে দিলনা। আমার মৃত্যুর পরে যেনো ওদের বিচার হয়। আমার মত যেনো আর কোন মেয়েকে মরতে না হয়। আমার মেয়েটা যেনো আমার মায়ের কাছে মানুষ হয়। আমার স্বামীকে ছেড়ে যেতে খুব কষ্ট হচ্ছে। কিন্তু আমি বেচে থাকলে আমার জানোয়ার শশুর শাশুড়ি আমাদের শান্তিতে থাকতে দেবে না। তাই আমাকে নিরূপায় হয়ে এই পথ বেচে নিতে হলো। আমার মৃত্যুর জন্য আমার শশুর আর শাশুড়ি দায়ী।’

পাটকেলঘাটা থানার পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) জেল্লাল হোসেন গৃহবধুর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ওই ঘটনায় নিহতের বাবা স্বপন সাহা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে শ্বশুর দীনবন্ধু সাহা ও শ্বাশুড়ি স্বপ্না রানী সাহাসহ ৪জনকে আসামী করে পাটকেলঘাটা থানায় মামলা দায়ের করেছেন। গৃহবধূর শ্বশুর দীনবন্ধু সাহা ও শ্বাশুড়ি স্বপ্না রানী সাহাকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ময়না তদন্তের জন্য বুধবার সকালে গৃহবধুর লাশ সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.