বড় মেয়ের জন্মসনদ দেখিয়ে ছোট মেয়েকে বিয়ে দেয়ার চেষ্টা – Satkhira Vision

March 5, 2021, 10:59 pm

সংবাদ শিরোনাম :
সাতক্ষীরার চোরাই গরু ডুমুরিয়ায় উদ্ধার: ২ চোর আটক কলারোয়া: আ’লীগ নেতার মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে দলীয় প্যাডে স্বাক্ষর নিলেন চেয়ারম্যান প্রার্থী জেলায় কমেছে আম চাষ! আবহাওয়া, বাজার ধর নিয়ে চিন্তিত আম চাষীরা সাতক্ষীরা: প্রতিবন্ধী বিদ্যালয় শিক্ষক-কর্মচারী কল্যাণ সমিতির কমিটি গঠিত শ্যামনগর: প্রাইভেটকারে ঘুরতে বের হয়ে লাশ হলেন শ্যালক-বোনাই! তালা: কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে সৎ বাবা গ্রেফতার সাতক্ষীরা: খাবারের প্রলোভন দেখিয়ে ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণ করলো বৃদ্ধ জেলায় কমেছে আম চাষ! আবহাওয়া, বাজার ধর নিয়ে চিন্তিত আম চাষীরা সাতক্ষীরা: ৫০ বোতল ফেনসিডিলসহ কাথন্ডার মাকফুর গ্রেফতার সাতক্ষীরা: করোনার টিকা নিলেন পিপি আব্দুল লতিফ
বড় মেয়ের জন্মসনদ দেখিয়ে ছোট মেয়েকে বিয়ে দেয়ার চেষ্টা

বড় মেয়ের জন্মসনদ দেখিয়ে ছোট মেয়েকে বিয়ে দেয়ার চেষ্টা

দেবহাটা প্রতিনিধি: দেবহাটায় বহেরায় এক অবসর প্রাপ্ত সেনা সদস্যের ৯ম শ্রেণি পড়ুয়া মেয়ের বিয়ে পুলিশের বাঁধার মুখে পন্ড হয়েছে। আর মুচলেকা দিয়ে এযাত্রার মত রেহাই পেল মেয়ের পরিবার। ঘটনাটি ঘটেছে কুলিয়া ইউনিয়ানের বহেরা উত্তর পাড়া গ্রামে।

জানা যায়, বহেরা গ্রামের অবসর প্রাপ্ত সেনা সদস্য শেখ মকবুল হোসেন তার বড় মেয়ে মুর্শিদা কুইন মিমের জন্ম সনদ ও উচ্চ মাধ্যমিকের প্রবেশ পত্র দেখিয়ে কৌশলে ছোট মেয়ে বহেরা এটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির ছাত্রী ছিরাতুন্নেসা জিমের সাথে ভোমরা ইউনিয়নের হাড়দ্দাহ গ্রামের শফিকুল বিশ্বাসের ছেলে আব্দুর রহিমের সাথে শুক্রবার দুপুরে বিবাহের দিন ধার্য্য করে। সকাল থেকে ডেকোরেশন ও রান্না-বান্না সহ ধুমধামের সহিত সকল অনুষ্ঠান সম্পন্ন প্রায়। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বরযাত্রী নিয়ে মাইক্রো ও মোটরসাইকেলের বহর নিয়ে মেয়ের বাড়িতে বরের আগমন।

এদিকে স্থানীয়রা বাল্যবিবাহের খবর প্রশাসনকে জানালে দুপুর ১টার দিকে দেবহাটা থানার এসআই মামুনুর রহমান বিয়ে বাড়িতে পৌছায়। তখন জুম্মার নামাজের সময় থাকায় বর যাত্রীসহ সকলে নামাজে থাকায় প্রশাসনকে বোকা বানাতে মেয়ের পরিবার তাদের ছোট মেয়ে ৯ম শ্রেণির ছাত্রী ছিরাতুন্নেসা জিমের পরিবর্তে বড় মেয়ে মুর্শিদা কুইন মিমের জন্ম সনদ ও উচ্চ মাধ্যমিকের প্রবেশ পত্র দেখিয়ে তর্ক বিতর্কে জড়িয়ে পড়ে। ততক্ষণে বর যাত্রীর লোকজন নামাজ পড়ে ফিরে আসে। পুলিশের চ্যালেন্সের মুখে বর যাত্রীর লোকের কাছে জিজ্ঞাসাবাদ এবং দুই মেয়েকে মুখোমুখি করে জানতে চাইলে সত্য ঘটনা বেরিয়ে আসে। পরে মেয়ের পিতা সহ তার পরিবার মেয়ের পূর্ণ বয়স না হওয়া পর্যন্ত বিবাহ দিবে না বলে মুচলেকা দিয়ে এ যাত্রার মত রেহাই পায়।


 

 




All rights reserved © Satkhira Vision

Design & Developed BY Asha IT