আশাশুনি প্রতিনিধি: আশাশুনি উপজেলার খরিয়াটি গ্রামের ফজলে গাজীর ছেলে মাদক সম্রাট বারীক গাজী জেল থেকে ফিরে এলাকায় আবারও বেপরোয়া হয়ে উঠেছে।

গাজা, হেরোইন, ফেনসিডিল, ইয়াবাসহ বিভিন্ন মাদকের আসর বসানোর অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে। আর সকল মাদক দ্রব্যের আসরে যোগ দিচ্ছে স্থানীয় উঠতি বয়সের যুবকেরা।

স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, বহু অপকর্মের হোতা বারীক গাজী এলাকায় ও মাদক ব্যবসায়ী মহলে মাদক সম্রাট নামে পরিচিত।

থানা সূত্রে জানাগেছে বারীক গাজী থানার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। এর আগে গত ২০১৮ সালের ৫নভেম্বর ৮০ পিছ ইয়াবাসহ আশাশুনি থানা পুলিশের কাছে গ্রেফতারসহ কয়েকবার মাদক দ্রব্যসহ হাতে নাতে ধরা পড়ে হাজতবাস করে সে। এব্যাপারে আশাশুনি থানায় মাদক দ্রব্য আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়। মামলা নং ১(১১)১৮।

বর্তমানে পাইকগাছা উপজেলা, সাতক্ষীরার তালা ও আশাশুনি উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়ন থেকে সন্ধ্যার পরে খরিয়াটি গ্রামে বারীক গাজীর বাড়ীর পার্শ্ববতী বাগানে রমরমা মাদকের আসরে অপরিচিত ব্যক্তিদের আনাগোনা দেখা মেলে।

স্থানীয়রা জানান, ঘনবসতী এলাকায় মাদক ব্যবসা চালানোর কারণে তাদের স্কুল পড়ুয়া সন্তানরা যুব সমাজ ধ্বংশকারী মাদকে ঝুঁকে পড়েছে।

এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে তাকে মাদক ব্যবসা বন্ধে অনুরোধ জানালেও তাকে কর্ণপাত করেনি বারীক গাজী। এমতাবস্থায় যুব সমাজকে বারীক গাজীর মাদকের মরণ ছোবল থেকে রক্ষা করতে জেলা পুলিশ সুপারের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন স্থানীয় সচেতন মহল।

আশাশুনি থানার পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) আজিজুল হক বলেন, সে যদি মাদক ব্যবসা করে তবে তার বিরুদ্ধে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।