Spread the love

নিজস্ব প্রতিনিধি: প্রেমের সম্পর্কের জেরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে সাতক্ষীরা সদরের লাবসা ইউনিয়নের দেবনগর এলাকার মুছা গাজীর ছেলে মনিরুল ইসলাম (৩৫) এর বিরুদ্ধে। ওই ঘটনায় ওই নারী ন্যায় বিচারের আশায় সাতক্ষীরা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

ভূক্তভূগী ওই নারী বলেন, আমি বাড়ীতেসহ বিভিন্ন ইট ভাটায় যেয়ে গৃহীনির কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করি। এক বছর পূর্বে চট্টগ্রামের এক ইট ভাটায় আমি রান্নার কাজ করতে যায়। ওই একই ইটভাটায় সর্দারের কাজ করতো মনিরুল ইসলাম। মনিরুল ও আমার বাড়ী একই গ্রামে হওয়ায় মনিরুলের সাথে আমার কথাবার্তা হতো। একপর্যায়ে সে আমার সাথে প্রেমের সম্পর্ক করে এবং আমাকে বিবাহ করার আশ্বাস প্রদান করে। সে আমাকে বিয়ে করবে বলে ঢাকায় নিয়ে আসে এবং একটি বাসা ভাড়া নিয়ে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ করে। এরপর আমি বারংবার বিবাহের কথা বলিলে সে বিভিন্ন অজুহাত দিয়ে তালবাহানা করতে থাকে।

এক পর্যায়ে তার বাড়িতে যেয়ে বিয়ের কথা বলিলে সে আমাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং এলোপাতাড়ী মারপিট করে। তারপর খুন জখমের হুমকি প্রদান করে তাড়িয়ে দেয়।
এ ব্যাপারে জানার জন্য মনিরুল ইসলামের মোবাইলে মঙ্গলবার রাত ৯টা ৪০মিনিটে কয়েকবার কল দিলে নম্বরটা বন্ধ পাওয়া যায়।

সাতক্ষীরা থানার এএসআই আবু তাহের বলেন, ভূক্তভূগী ওই নারী থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

By S V

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *