Spread the love

মুন্না, কলারোয়া: সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত কলারোয়ার সাংবাদিক ফিরোজ জোয়ার্দার (৩২) এর দাফন কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে। শনিবার (২০ মার্চ) সকাল ১০ টায় কলারোয়া কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সামনে জানাযা নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। জানাযা নামাজ পরিচালনা করেন কলারোয়ার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের ইমাম হাফেজ আবুল কালাম। জানাযা নামাজ শেষে মরহুমকে পৌরসভাধীন গদখালিস্থ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

জানাযা নামাজ পূর্ব আলোচনায় অংশ গ্রহণ করেন, পৌর মেয়র মাস্টার মনিরুজ্জামান বুলবুল, শিক্ষাবিদ অধ্যাপক আবু নসর, উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও জামে মসজিদ কমিটির সহ সভাপতি আলহাজ্ব আরাফাত হোসেন, সাতক্ষীরা জেলা পরিষদের সদস্য সমাজ সেবক আলহাজ্ব শেখ আমজাদ হোসেন, প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক প্রধান শিক্ষক রাশেদুল হাসান কামরুল। এসময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন, আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান স,ম মোরশেদ আলী,
মরহুমের পিতা আক্তার হোসেন ভোলা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক রবিউল আলম মল্লিক রবি, ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক জাহিদুর রহমান খান চৌধুরী, প্রেসক্লাবের সভাপতি শিক্ষক দীপক শেঠ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক শেখ জুলফিকারুজ্জামান জিল্লু, সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, প্রেসক্লাব সদস্য তরিকুল ইসলাম, সহকারী অধ্যাপক কামরুজ্জামান পলাশ, ব্যবসায়ী আলহাজ্ব কাজী শামছুর রহমান, প্রধান শিক্ষক মুজিবুর রহমান, ব্যবসায়ী মোশাররফ, বাচ্চু, হেলাল হক, শাহিন, ডাব্লু, সমাজসেবক আব্দুর গফুর, বিএনপি নেতা এম,এ রব শাহীন, যুবদল নেতা এম,এ হাকিম সবুজ, অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক ফজলুল করিম, সাংবাদিক শামছুর রহমান লাল্টু, সাংবাদিক সরদার জিল্লুর রহমান, মোজাহিদুল ইসলাম, জাহিদুল ইসলাম, পলাশ, রিপন, রাজু রায়হানসহ বিভিন শ্রেণি পেশার অসংখ্য মুসুল্লীগণ ও শুভাকাঙ্খীবৃন্দ।

উল্লেখ্য, শুক্রবার(১৯ মার্চ) বেলা ১ টার দিকে সদর উপজেলার ছয়ঘরিয়া নামক স্থানে সাতক্ষীরা-যশোর মহাসড়কে ইটভাটার মাটি বহনকারী ঘাতক ট্রলির সাথে মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ হয়। এতে মোটরসাইকেল আরোহী সাংবাদিক ফিরোজ জোয়ার্দার (ইসমাইল হোসেন) মারাত্মক আহত হলে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *