Spread the love

নিজস্ব প্রতিনিধি: ছাদের উপর ডেকে ষষ্ঠ শ্রেণীর এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে যুবক একরামুল হক (২৩) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

রোববার(১৪ মার্চ) রাত সাড়ে ৯ টার দিকে সাতক্ষীরা সদরের বালিয়াডাঙা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

গ্রেপ্তার একরামুল হক সাতক্ষীরা সদরের বালিয়াডাঙা গ্রামের নির্মাণ শ্রমিক কামরুল ইসলামের ছেলে।

সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নির্যাতনের শিকার ওই মাদ্রাসা ছাত্রী বলেন, আমার বাবা ভাটায় কাজ করার কারণে প্রতিনিয়ত তিনি বাড়িতে দেরিতে ফেরেন।এছাড়া তার মা রাতকানা। রোববার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে বাড়িতে মা থাকাকালিন সময়ে একরামুল ইসলাম আমাদের বাড়িতে এসে কিছু বলার জন্য বাড়ির ছাদে ডেকে নিয়ে যায়। পরে আমার মুখ চেপে ধরে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায় একরামুল। পরে আমি চিৎকার দিলে পাশের ভাবীসহ অনেকেই ছুটে আসে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য সামছুর রহমান বলেন,
প্রতিবেশীরা ছুটে এসে রক্তাক্ত অবস্থায় ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক ডা. শাহীনুর হাসান জানান, ওই মাদ্রাসা ছাত্রীর যৌনাঙ্গ রক্তাক্ত জখম হয়েছে।

সাতক্ষীরা থানার পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন্স) বিপ্লব কান্তি বলেন, ধর্ষণের অভিযোগে পুলিশ একরামুলকে গ্রেপ্তার করেছে। এ ঘটনায় ভিকটিমের ভাই বাদী হয়ে মামলা করেছেন। সোমবার বিকালে একরামুলকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। ভিকটিমের ডাক্তারী পরীক্ষা ও ২২ ধারায় জবানবন্দি মঙ্গলবার সম্পন্ন হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *