অপহৃত নবজাতককে মায়ের কোলে ফিরিয়ে দিল পুলিশ – Satkhira Vision

November 25, 2020, 5:41 am

সংবাদ শিরোনাম :
ভালোবাসা মঞ্চের সম্মাননা স্মারক পেলো ‘স্বর্ণ কিশোরী নের্টওয়াক ফাউন্ডেশন’ সাতক্ষীরা: প্রতিবন্ধীর স্বপ্ন পূরণে সারথি হলেন উপজেলা চেয়ারম্যান বাবু সাতক্ষীরা: তারেক রহমানের জন্মদিন উপলক্ষে ছাত্রদলের দোয়া কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা দিল সাতক্ষীরা ল স্টুডেন্টস্ ফোরাম প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ কেন্দ্রীয় শ্রমিকলীগ সভাপতির মৃত্যুতে বিবিসির শোক দেবহাটা: আ.লীগ নেতা রায়হান হত্যার ৭ বছরেও অধঁরা খুনীরা দেবহাটা: কুলিয়া ইউনিয়ন তাঁতী লীগের আহবায়ক কমিটি গঠিত সাতক্ষীরা: কবিরাজ দাদুর কান্ড! অবশেষে শ্রীঘরে! সাতক্ষীরা: ভারতীয় পাতার বিড়িসহ কাকডাঙ্গার মোফাখখের ও উজ্জল গ্রেফতার
অপহৃত নবজাতককে মায়ের কোলে ফিরিয়ে দিল পুলিশ

অপহৃত নবজাতককে মায়ের কোলে ফিরিয়ে দিল পুলিশ

এসভি ডেস্ক: রাজধানীর কদমতলী থানার জিনাম হাসপাতাল থেকে চুরি হওয়া নবজাতককে উদ্ধার করেছে ডিএমপির কদমতলী থানা পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত নারীসহ চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

শনিবার (২৪ অক্টোবর) দুপুরে কদমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মু. জামাল উদ্দিন মীর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- কামরুন নাহার মুন্নি (৪০), রুনা (৩৫), রওশন আরা (৫০) ও আফসানা বেগম (৪৫)।

তিনি বলেন, ভুক্তভোগী রাবেয়া হাফছানা গত রবিবার (১৮ অক্টোবর) গ্রেফতারকৃত কামরুন নাহার মুন্নির সহায়তায় কদমতলী থানার বিক্রমপুর প্লাজা সংলগ্ন জিনাম হাসপাতালে ভর্তি হন। ওইদিন রাতে সিজারিয়ানের মাধ্যমে তিনি একটি বাচ্চা জন্ম দেন। জিনম হাসপাতালে তার জন্ম দেওয়া ছেলে শিশু গত ১৮ থেকে ১৯ অক্টোবর যেকোনো সময় চুরি হয়ে যায়। এরপর বিভিন্ন জায়গায় অনেক খোঁজাখুঁজি করেও নবজাতক বাচ্চার সন্ধান পাননি।

ওসি আরও বলেন, গত বুধবার (২১ অক্টোবর) রাত সাড়ে ৮ টার দিকে থানায় এসে ভুক্তভোগী রাবেয়া তার বাচ্চা চুরি হয়েছে মর্মে অভিযোগ করেন। 

তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টির গুরুত্ব অনুধাবন করে এসআই কবির হোসেন ও এসআই রোমানার নেতৃত্বে একটি চৌকষ দল ঘটনাস্থলে যায়। 

এ সময় কামরুন নাহারকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ। তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে জিনম হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে রুনাকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে মহাখালীতে অভিযান পরিচালনা করে আরেক অভিযুক্ত রওশন আরাকে গ্রেফতার করা হয়। 

পরবর্তীতে গ্রেফতারকৃতদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে মূল অভিযুক্ত আফসানা বেগমকে বৃহস্পতিবার ভোররাতের দিকে গ্রেফতার ও চুরি যাওয়া নবজাতককে উদ্ধার করা হয়।

ওসি জামাল উদ্দিন মীর বলেন, প্রাথমিকভাবে গ্রেফতারকৃতরা ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ততা স্বীকার করেছে। আমরা শেষপর্যন্ত নবজাতকটিকে তার মায়ের কোলে তুলে দিতে পেরেছি এটাই বড় শান্তনা। মাতৃক্রোড় নামক পৃথিবীর সবচেয়ে নিরাপদ আশ্রয়স্থলে নবজাতকটি ফিরতে পেরেছে।

এ ঘটনায় কদমতলী থানায় মানব পাচার ও প্রতিরোধ আইনে একটি মামলা রুজু হয়েছে।


 

 




All rights reserved © Satkhira Vision

Design & Developed BY Asha IT