নোয়াখালীতে মধ্যযুগীয় কায়দায় গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনায় আটক এক – Satkhira Vision

October 20, 2020, 7:52 pm

সংবাদ শিরোনাম :
ইলেকট্রিশিয়ান ফেডারেশন কেন্দ্রীয় কমিটি ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক হলেন ইমাদুল কলারোয়া: নৃশংস ফোর মার্ডার! হ্যাচারী কর্মচারীসহ আরো ৩ জন গ্রেপ্তার সাতক্ষীরা: বাঁশদহায় উপ-নির্বাচনে মেম্বর পদে আহসান বিজয়ী সাতক্ষীরা: দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে ৫ম শ্রেণীর ছাত্র গ্রেপ্তার ব্রক্ষ্মরাজপুর ০৭ নং ওয়ার্ডের উপনির্বাচনে নিরঞ্জন ঘোষ ছোট্রু নির্বাচিত কলারোয়া: কেরালকাতা ইউপি’র উপনির্বাচনে নৌকার বিজয় সাতক্ষীরা: সরকার দলীয় উচ্চপর্যায়ের নেতাদের ছবিকে ব্যবহার করে প্রতারণা; গ্রেফতার-১ সাতক্ষীরা: সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে বাঁশদহায় চলছে ভোট গ্রহণ সাতক্ষীরা: বাঁশদহায় ভোট কেন্দ্র পরিদর্শন করলেন ওসি আসাদুজ্জামান আশাশুনি: মাছের ঘের হতে কলেজ ছাত্রের ভাসমান মরদেহ উদ্ধার
নোয়াখালীতে মধ্যযুগীয় কায়দায় গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনায় আটক এক

নোয়াখালীতে মধ্যযুগীয় কায়দায় গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনায় আটক এক

এসভি ডেস্ক: নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে মধ্যযুগীয় কায়দায় গৃহবধূকে বাবার বাড়িতে ধর্ষণচেষ্টা তারপর বিবস্ত্র করে নির্যাতন করেছে স্থানীয় বখাটে একদল যুবক। শেষে নির্যাতিতা ওই গৃহবধূকে বেধড়ক মারধর করে তার ভিডিও চিত্র ধারণ করে। এ ঘটনায় পুলিশ একজনকে গ্রেফতার করেছে।

আটককৃত ব্যক্তির নাম আব্দুর রহীম (২৭)। তিনি একলাশপুর ইউনিয়নের পূর্ব একলাশপুর গ্রামের হাড়িধন বাড়ির বাসিন্দা।

রোববার (৪ অক্টোবর) দুপুরের দিকে ঘটনার ৩২ দিন পর গৃহবধূকে নির্যাতনের ওই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে প্রকাশ পেলে ইতোমধ্যে তা ভাইরাল হয়ে যায়। তারপর টনক নড়ে স্থানীয় প্রশাসনের। ঘটনার পর থেকে নির্যাতিতা মহিলা বখাটেদের ভয়ে বিভিন্ন আত্মীয়ের বাড়িতে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন।

স্থানীয়রা জানায়, গত মাসের (২ সেপ্টেম্বর) উপজেলার একলাশপুর ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের খালপাড় এলাকার নূর ইসলাম মিয়ার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। ভয়ে পরিবার এ নিয়ে কথা বলতে অনীহা প্রকাশ করে। তাই ঘটনার ৩২ দিন অতিবাহিত হলেও ভুক্তভোগী পরিবার এ ঘটনায় থানায় কোনো অভিযোগ দায়ের করতে পারেনি।

বেগমগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হারুন উর রশীদ জানান, পুলিশ এখন ঘটনাস্থলে রয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে একজনকে আটক করা হয়েছে। তবে ওই গৃহবধূকে তার বসত ঘরে পাওয়া যায়নি। ভুক্তভোগীকে পাওয়া গেলে বিস্তারিত জানা যাবে।

নোয়াখালী পুলিশ সুপার মো. আলমগীর হোসেন জানান, অভিযুক্তদের গ্রেফতারে এবং নির্যাতিতা পরিবারকে উদ্ধারে জেলা পুলিশের ৫টি ইউনিট মাঠে কাজ করছে।


 

 




All rights reserved © Satkhira Vision

Design & Developed BY Asha IT