প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ – Satkhira Vision

September 24, 2020, 8:53 am

সংবাদ শিরোনাম :
সাতক্ষীরা: বড় বাজার সংলগ্ন নেট টেলিকমে দূর্ধর্ষ চুরি কলারোয়া: কেরালকাতা ইউপির উপনির্বাচনে ৩ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা সাতক্ষীরা: মীর্জা সালাউদ্দীনের নেতৃত্বে মাদক বিরোধী অভিযান, ডোপ টেস্টে ১৫ জন পজিটিভ বাহাউদ্দিন নাছিমের সুস্থতা কামনায় বিবিসি ফান্ডেশনের দোয়া অনুষ্ঠান ফলোআপ: সাতক্ষীরা ভিশন সংবাদ প্রকাশের জের, দীনমুজুরের চিকিৎসাসেবায় এগিয়ে এলো বিবিসি ফাউন্ডেশন কলারোয়া: উপজেলা অফিসার্স ওয়েল ফেয়ার ক্লাবে ওসি শেখ মুনীর-উল-গীয়াসের বিদায় সংবর্ধনা সাতক্ষীরা: ৮৭ বোতল ফেন্সিডিলসহ শাখরার মনিরুল ও রিয়াজুল গ্রেফতার কলারোয়া: বিত্তবানরা এগিয়ে আসলে বাঁচতে পারে ক্যান্সার আক্রান্ত তন্নি সাতক্ষীরা: পায়ের তিনটি আঙুল কেঁটে বাদ দিলেন হাতুড়ে ডাক্তার! পঙ্গু হলেন দীনমজুর দেবহাটা: গ্রাম্য ডাক্তারের অপচিকিৎসায় পা হারাতে বসেছেন দীনমুজুর
প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

গত সোমবার ও মঙ্গলবার সাতক্ষীরা হতে প্রকাশিত  দৈনিক কালেরচিত্র পত্রিকাসহ অনলাইন পত্রিকায় ” সাতক্ষীরায় প্রশাসনের নির্দেশ অমান্য করে বল্লীর মান্ডারী খালে নেট পাটার বাঁধ” শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদটি আমাদের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। প্রকাশিত সংবাদপত্রে আমাদের বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসনের নির্দেশনা অমান্য করে স্থায়ী জলাবদ্ধতা সৃষ্টি করে মাছ চাষের অভিযোগসহ আমাদের ভূমিদস্যু, জামায়াত নেতা আখ্যায়িত করে যে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে সেটা সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যে প্রণোদিত। প্রকৃত ঘটনা হলো ৮০’র দশকে সদর উপজেলার ঘরচালা, নারায়ণপুর, হাজীপুর সহ একাধিক এলাকার জলাবদ্ধতার পানি নিষ্কাশনের জন্য মান্ডারী খাল খনন করা হয়। তবে অপরিকল্পিত ঘের , বসতবাড়ি গড়ে উঠার কারনে অল্প বৃষ্টির পানিতে অত্র এলাকার ৫হাজার বিঘার কৃষিজমি পানির নিচে ডুবে থাকে। পরবর্তীতে গ্রামবাসীদের দাবির প্রেক্ষিতে ২০০৯ সালে তৎকালিন সাংসদ এম,এ জব্বার, বর্তমান জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ-সম্পাদক আলহাজ্ব নজরুলসহ একাধিক গণ্যমান্য ব্যক্তির সহযোগীতায় পানি নিষ্কাশনের জন্য সেচ প্রকল্পের উদ্বোধন করা হয়। তাঁদের নির্দেশনা মোতাবেক দীর্ঘ ১০বছরেরও বেশি সময় ধরে সেচ প্রকল্পের বাৎসরিক কয়েক লক্ষ টাকার বিদ্যুৎ বিল বহন করতে বর্ষামৌসুমে ৫হাজার বিঘা জমিতে মাছ চাষের মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করা হয়। তবে খালটিতে বেড়িবাঁধ না থাকার কারনে কৃষকের ছাড়া মাছগুলো হাতিয়ে নিতে সমাজের একশ্রেণীর কুচক্রী মহল ব্যর্থ হলে তারা আমাদের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়। এরই সূত্রধরে তারা সংবাদকর্মীদের ভূল তথ্য দিয়ে উপরোক্ত মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করিয়েছে। একারনে আমরা সংবাদপত্রে প্রকাশিত উক্ত সংবাদের তীব্রনিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। এবং তথ্যনির্ভর সংবাদ প্রকাশ করার জন্য সংবাদকর্মীদের প্রতি অনুরোধ করছি।

প্রতিবাদকারী
রেজাউল ইসলাম, বদরউদ্দিন, জাহারুল ইসলাম ও ফারুক হোসেন
ঘরচালা, সাতক্ষীরা।


 

 




All rights reserved © Satkhira Vision

Design & Developed BY Asha IT