আশাশুনি: বিতরণ না করে কুল্যা ইউপিতে তালাবদ্ধ ১৯ বস্তা চাউল! – Satkhira Vision

April 14, 2021, 7:38 am

সংবাদ শিরোনাম :
শ্যামনগর: প্রেমের ঘটনাকে কেন্দ্র করে হিন্দু বাড়িতে হামলা! ঘর ও মন্দির ভাঙচুর সবাই সর্তক থাকলেই করোনা ভাইরাস থেকে মুক্ত থাকা সম্ভব: নজরুল ইসলাম দেবহাটা: মানুষের সাথে মৌমাছির বসবাস শ্যামনগর: ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বন্ধ হল বাল্যবিবাহ শ্যামনগর: উপকূলের ক্ষতিগ্রস্থ মানুষকে ফ্রি স্বাস্থ্য সেবা প্রদান কলারোয়া: সেবার দাফন টিমের সদস্যদের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত সাতক্ষীরা: বন্ধুকে জবাই করে নিজের বাবাকে জানায় খুনি সাগর! সাতক্ষীরা: গাঁজা ক্রয়ের ২০০ টাকার জন্য বন্ধুকে জবাই করে খুন করে সাগর দেবহাটা: দূর্ঘটনায় নিহতের পরিবারের পাশে আওয়ামী লীগ নেতা বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমস-এ রৌপ্য পদক জয়ী দেবহাটার ইয়াছিন
আশাশুনি: বিতরণ না করে কুল্যা ইউপিতে তালাবদ্ধ ১৯ বস্তা চাউল!

আশাশুনি: বিতরণ না করে কুল্যা ইউপিতে তালাবদ্ধ ১৯ বস্তা চাউল!

আশাশুনি প্রতিনিধি: আশাশুনি উপজেলার কুল্যা ইউনিয়ন পরিষদের একটি রুমে (গোডাউনে) থাকা ১৯ বস্তা চাউলকে ঘিরে ধুম্রজালের সৃষ্টি হয়েছে।

অভিযোগ উঠেছে ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল বাছেত আল হারুন চৌধুর আত্মসাতের উদ্দেশ্যে ওই চাউল রুমে তালাবদ্ধ করে রেখেছেন।

তথ্যানুসন্ধানে জানা যায়, ৭২২ জন মৎস্যজীবি জেলের জন্য সরকার কর্তৃক বরাদ্দকৃত মাথা পিছু ৫৬ কেজি করে চাউল ১৫ দিন আগে বিতরণ করা হয়। পরবর্তীতে আরও ৬৩ জন জেলের অনুকুলে মাথাপিছু ৫৬ কেজি করে চাউল বরাদ্দ দেওয়া হয়। ৬৩ জনের চাউল ০৬ জুলাই বিতরণ করা হয়। বিতরণ কালে ট্যাগ অফিসারের উপস্থিতিতে ৬৩ জনের মধ্যে ৬২ জনকেই ওই চাউল বিতরণ করা হয়েছে বলে জানা যায়। কুল্যা ইউপি পরিষদের রুমে চাউল থাকার বিষয়টি জানাজানি হলে বেশি কিছু প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ার কর্মী কুল্যা ইউনিয়ন পরিষদে উপস্থিত হলে চাউল থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হন তারা। রুমে থাকা ৫০ কেজি ওজনের ৯ বস্তা ও ৩০ কেজি ওজনের ৯ বস্তা চাউল ও অল্প স্বল্প চাউলের দুটি বস্তা রুমে তালাবন্ধ অবস্থায় দেখতে পান তারা।

এ ব্যাপারে ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বর আঙ্গুর হোসেন ও নজরুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, রোববার ৬৩ জনেকে মাথা পিছু ৫৬ কেজি করে চাউল বিতরণ করার কথা ছিল সেখানে ৬২ জনকে ওই চাউল বিতরণ করলে ০১ বস্তার বেশি চাউল থাকার কথা নয়। তবে এখনও ১৯ বস্তা চাউল রুমে থেকে গেছে। চেয়ারম্যান উক্ত চাউল আত্মসাৎ করার উদ্দেশ্যে রুমে তালা দিয়ে রেখেছেন। এছাড়াও তার বিরুদ্ধে একাধিক দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে।

এব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল বাছেত আল হারুন চৌধুরী সাংবাদিকদের জানান, প্রথমে ৭২২ জন জেলেকে ও পরবর্তীতে আরও ৬৩ জন সর্বমোট ৭৮৫ জনকে মাথা পিছু ৫৬ কেজি করে চাউল বরাদ্দ পাই। ট্যাগ অফিসারের উপস্থিতিতে সঠিক ভাবে চাউল বিতরণ করা হয়েছে। করোনা ভাইরাসের কারণে একদিনে সকলকে না ডেকে ওয়ার্ড হিসাবে ডেকে চাউল বিতরণ করা হয়। জেলেরা বাইরে থাকায়, কিংবা খবর না পাওয়ায় অনেকে সময় মত আসেননি, তাই যখনই কেউ এসেছেন, তখনই তাকে চাউল দেওয়া হয়েছে। সর্বশেষ রোববার চাউল বিতরণ করে ১০/১২ জন জেলে উপস্থিত না হওয়ায় তাদের চাউল ইউনিয়ন পরিষদ গোডাউনে তালা দিয়ে রেখেছি। তারা নিতে আসলে বিতরণ করা হবে। তবে ইউনিয়ন পরিষদের সচিব উপস্থিত না থাকায় মাষ্টাররোল দেখাতে পারেননি।

ইউনিয়ন মৎস্যজীবি সমিতির সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলাম জানান, ৬ জুলাই ৬৩ জনকে চাউল বিতরণের কথা থাকলেও ৬২জন জেলে বা মৎস্যজীবিকে চাউল বিতরণ করা হয়েছে।

এব্যাপারে ইউপি ট্যাগ অফিসার ও সহকারি শিক্ষা অফিসার আবু সেলিম জানান, সবশেষ রবিবার জেলে কার্ডের চাউল বিতরণ করা হয়েছে। ২/৩ জনের চাউল ফিরে যাবে। আর হয়তবা কয়েকজনের চাউল বিতরণ করতে বাকী আছে।


 

 




All rights reserved © Satkhira Vision

Design & Developed BY Asha IT