ব্যর্থ প্রেমের গল্প: জীবনের ডাইরীতে শুধু তোমার নাম! – Satkhira Vision

April 10, 2021, 2:03 pm

সংবাদ শিরোনাম :
বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমস-এ রৌপ্য পদক জয়ী দেবহাটার ইয়াছিন সাতক্ষীরা: একসাথে নেশা করতে যেয়ে কাশেমপুরে বন্ধুর চুরিকাঘাতে কিশোর নিহত কলারোয়া: বালিয়াডাঙ্গা বাজারে অগ্নিকাণ্ডে ৬ দোকান ভষ্মিভূত কলারোয়া: মুখ চেপে ধরে শিশুকে বলৎকার, রক্তক্ষরণ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি কলারোয়া: করোনা প্রতিরোধে জনসচেতনতার উপর উপজেলা কমিটির গুরুত্বারোপ কলারোয়া: পরসম্পদ লোভীদের আইনের আওতায় আনার দাবীতে মুক্তিযোদ্ধার সংবাদ সম্মেলন কলারোয়া: সরকারী নির্দেশনা অমান্য করায় ৮ জনকে জরিমানা সাতক্ষীরা: অসহায় ভ্যানচালকের ছেলের চিকিংসায় আর্থিক অনুদান প্রদান ১৪ এপ্রিল থেকে সব বন্ধ, ‘কঠোর লকডাউনে’ যাচ্ছে দেশ শ্যামনগর: বিদ্যুতের মেইন লাইনের তার ছিড়ে প্রাণ গেল শিশুর
ব্যর্থ প্রেমের গল্প: জীবনের ডাইরীতে শুধু তোমার নাম!

ব্যর্থ প্রেমের গল্প: জীবনের ডাইরীতে শুধু তোমার নাম!


আমি খারাপ হতে পারি সোনা তবে এতোটা খারাপ নয় যে যাকে নিজের জীবনের চাইতে বেশি ভালোবাসতাম তাঁর থেকে কষ্ট পেতে হবে। আমি-না অনেকটা সহজ সরল ভাবে চলতে পছন্দ করি। সবসময় মিথ্যা ও অন্যায় কাজ থেকে নিজেকে বিরত রাখার চেষ্টা করি।

হয়তো তোমার সাথে আজ বহুদিন কোন কথা হয়না। তবে তোমাকে আজও আগের মতো ভালোবাসি লক্ষীটি। আচ্ছা আমার অপরাধটা কী ছিলো? আমাকে ভালোবাসাটাই তোমার জীবনের সবচেয়ে বড় অপরাধ বলে হয়তো ভাবতে পারো তুমি। তবে তোমার চোখের অপরাধ আমার কাছে সোনার হরিণের মতো বলতে পারো।

কেননা, সাড়ে তিনবছরের রিলেশনশীপে তোমার ভালোবাসা পাওয়াটাই আমার জীবনের বড় পূর্ণতা। তোমার ভালোবাসা পেয়ে আমি নিজেকে অনেক পরিবর্তন করে ফেলেছিলাম। তবে তোমার ভালোবাসা হারিয়ে আজ সাড়ে আটমাস আমি নিজেকে কখনো সুখি মনে করতে পারিনি। সবসময় এটাই মনে হয়েছে যার সাথে মনের মিলন হয়েছে তাকে না পাওয়াটাই আমার জীবনের সবচেয়ে বড় অপূর্ণতা।

আমার জীবনের ডাইরীতে শুধু একটি নাম বারেবারে লেখা। আর সেটা তোমার নাম। হয়তো তুমি ভাবতে পারো আমার চেয়ে অনেক ভালো ছেলে তোমার গলায় মালা বাঁধাবে। আর এটা আমি মনেপ্রাণে বিশ্বাস করি। তবে তুমি কখনো এটা ভেবে দেখোনি তোমাকে ছাড়া আমি কীভাবে থাকবো? আমিতো প্রতিদিন তোমার ছবির সাথে কথা বলি। আমার পিতামাতা আমাকে পাগল বলে যখন তোমার ছবির সাথে আমাকে কথা বলতে দেখে।

আমার আম্মু আমার জন্ম থেকে বলতে পারো আমার জন্য তাঁর পছন্দের কোনকিছু ক্রয়করে আমার দেয়নি। বরং আমার নিজের পছন্দকে তিনি প্রাধান্য দিয়েছেন আর আজও দিচ্ছেন। তবে জানো! আমার আম্মু সর্বপ্রথম নিজের পছন্দের একটা থ্রি-পিচ কিনেছিলো। তবে আমার বোনেদের জন্য নয় বরং তোমার জন্য।

আমি-না সেসময় নিজেকে খুব ভাগ্যবান মনে করেছিলাম যখন শুধুমাত্র তোমার কারনে আমার সাথে আমার আম্মু সর্বপ্রথম মার্কেটে গিয়েছিলো। তবে কষ্টের কথা কী জানো!! আমার আম্মু যার জন্য নিজের পছন্দে বস্ত্রক্রয় করেছিলো সেই মানুষটি তাকে অনেক কষ্ট দিয়েছে। তারপরেও আমি বা আমার পরিবারের কেউ কখনো তোমাকেসহ তোমার পরিবারকে খারাপ নজর দেখেনি।

বরং আমার ও আমার পরিবারের প্রতি তোমার উদাসীনতা তোমার প্রতি আমাদের ভালোবাসাকে আরো অটুট করেছিলো।

যেদিন ঝড় হচ্ছিলো সেদিন আমার পিতামাতা তোমাদের খোজঁ নেওয়ার জন্য বলেছিলো যে ঝড়ে তোমাদের কোন ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে কিনা। আমি খোজঁ নিয়েছিলাম আঙ্কেলের কাছে। যেদিন আমি তোমার বাসায় খাদ্যসামগ্রী পাঠায় ঐদিন আমার আব্বু ও আম্মু নিজের হাতে ক্যারেট ভর্তি আম তোমার জন্য পাঠিয়েছিলো।

তাদের সেদিনের বক্তব্যটা এমনি ছিলো যে ঐটা আমাদের মেয়ের কাছে দিয়ে এসো। যার কষ্ট তাঁর কাছে। আর আমার কষ্ট আমিসহ আমার পরিবারের মাঝে। স্বপ্নের মানুষটি যখন না চাইতে দূরে চলে যায় তখন তাঁর মতো কষ্টের কীবা আর থাকতে পারে।

ভালো থেকো আমার ভালোবাসা। কখনো তোমায় ক্ষতি চাইবোনা।


লেখা:- সংবাদকর্মী


 

 




All rights reserved © Satkhira Vision

Design & Developed BY Asha IT