আশাশুনি: বহিস্কৃত তাঁতীলীগ নেতা হাবিবুরের অত্যাচারে অতিষ্ঠ সাধারণ মানুষ – Satkhira Vision

April 14, 2021, 5:04 pm

সংবাদ শিরোনাম :
প্রেমের ফাঁদে ফেলে শারীরিক সম্পর্ক! কলেজ শিক্ষার্থীর মামলায় যুবক গ্রেপ্তার শ্যামনগর: বাঘের আক্রমণে লাশ হয়ে ফিরলেন হাবিবুর! শ্যামনগর: প্রেমের ঘটনাকে কেন্দ্র করে হিন্দু বাড়িতে হামলা! ঘর ও মন্দির ভাঙচুর সবাই সর্তক থাকলেই করোনা ভাইরাস থেকে মুক্ত থাকা সম্ভব: নজরুল ইসলাম দেবহাটা: মানুষের সাথে মৌমাছির বসবাস শ্যামনগর: ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বন্ধ হল বাল্যবিবাহ শ্যামনগর: উপকূলের ক্ষতিগ্রস্থ মানুষকে ফ্রি স্বাস্থ্য সেবা প্রদান কলারোয়া: সেবার দাফন টিমের সদস্যদের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত সাতক্ষীরা: বন্ধুকে জবাই করে নিজের বাবাকে জানায় খুনি সাগর! সাতক্ষীরা: গাঁজা ক্রয়ের ২০০ টাকার জন্য বন্ধুকে জবাই করে খুন করে সাগর
আশাশুনি: বহিস্কৃত তাঁতীলীগ নেতা হাবিবুরের অত্যাচারে অতিষ্ঠ সাধারণ মানুষ

আশাশুনি: বহিস্কৃত তাঁতীলীগ নেতা হাবিবুরের অত্যাচারে অতিষ্ঠ সাধারণ মানুষ

আশাশুনি প্রতিনিধি: আশাশুনি প্রেসক্লাবে প্রশাসনের কাছে নিজের জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন আশাশুনি উপজেলার গোদাড়া গ্রামের ফজর আলীর ছেলে মিনহাজ উদ্দীন।

লিখিত বক্তব্য ও সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নে জবাবে তিনি বলেন, গত ২৫ ডিসেম্বর সাতক্ষীরার স্থানীয় কয়েকটি পত্রিকায় “শোভনালীতে রাসেল স্মৃতি সংঘের অফিস ভাংচুরের একটি সংবাদ পরিবেশন করা হয়েছে। প্রকৃত পক্ষে বাংলাদেশ তাঁতীলীগ থেকে বহিস্কৃত নেতা হাবিবুর রহমানের অত্যাচারে এলাকার সাধারণ মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে।

শোভনালী ইউনিয়নের এ বহিস্কৃত নেতার বাড়ীতে কেরাম বোর্ডের আসর বসিয়ে এলাকায় বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি ও যুব সমাজকে ধ্বংসের পায়তারা করছে। তাদের কার্যক্রমে বাঁধা দিলে প্রতিবাদকারীকে মারপিট করে ত্রাসের রাজ্যত্ব কায়েম করে রেখেছে।

গত ২৩ ডিসেম্বর সকাল ৯টার দিকে হাবিবুর রহমানের নেতৃত্বে তার দলবল রাস্তায় সাবেক মেম্বর রেজাউল করীমের মোটর সাইকেল দাঁড় করিয়ে তাকে মারপিট করে আহত করে। তাকে আশাশুনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমানে তারা জুয়া খেলাকে বৈধ্য করতে কেরাম বোর্ডের খেলা ঘরকে রাসেল স্মৃতি সূর্য তোরণ যুব সংঘ নাম দিয়েছে।

আমাদের উপর হামলার ঘটনাটি ভিন্ন খ্যাতে প্রভাবিত করতে ওই ঘরে রক্ষিত মানববতার নেত্রী প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, সাতক্ষীরা ৩ আাসনের সংসদ সদস্য ডাঃ আা ফ ম রুহুল হক ও আশাশুনি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এবিএম মোস্তাকিম সাহেবের ছবি ও ব্যানার তারা নিজেরা ছিড়ে ফেলেছে। পরে সুবিধা বুঝে স্থানীয় সাংবাদিকদের ভুল বুঝিয়ে এবং ভুল তথ্য দিয়ে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করিয়েছে।

এরপরেও হাবিবুর রহমানের লোকজন প্রতিদিন আমাদের পরিবারের লোক জনকে পথে একা পেয়ে অপমান অপদস্ত করে যাচ্ছে। তাদের হুমকি ধামকিতে আমরা নির্ভিঘ্নে রাস্তায় বের হতে পারছি না। তিনি সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ সুপারের কাছে নিজের জীবন ও তার পরিাবারের নিরাপত্তা চেয়েছেন।


 

 




All rights reserved © Satkhira Vision

Design & Developed BY Asha IT