মারা গেছে যুদ্ধাপরাধী ও মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলার আসামী বৈকারীর টেক্কা খান – Satkhira Vision

March 4, 2021, 1:09 pm

সংবাদ শিরোনাম :
সাতক্ষীরা: ৫০ বোতল ফেনসিডিলসহ কাথন্ডার মাকফুর গ্রেফতার সাতক্ষীরা: করোনার টিকা নিলেন পিপি আব্দুল লতিফ সাতক্ষীরা: মাহিন্দ্রা চালকদের উপর বাস শ্রমিকদের হামলা, আহত ৮ কলারোয়া: ৯৯ বোতল ফেনসিডিলসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার কলারোয়া: জাতীয় ভোটার দিবস পালিত  কলারোয়া: ৩টি দোকানসহ একটি বাড়িতে অগ্নিকান্ডে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি শ্যামনগর: এবার কালভার্ট এর উপর পরিত্যাক্ত ব্যাগে মিললো জীবন্ত নবজাতক সাতক্ষীরা: বিদায়ী হাফেজদের পাগড়ি প্রদান করলো আল নূর ফাউন্ডেশন কলারোয়া: কাকডাঙ্গায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে জখম ৪ সাতক্ষীরা: গাঁজাসহ কুশখালীর প্রফেশনাল মাদক ব্যবসায়ী আজগর গ্রেফতার
মারা গেছে যুদ্ধাপরাধী ও মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলার আসামী বৈকারীর টেক্কা খান

মারা গেছে যুদ্ধাপরাধী ও মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলার আসামী বৈকারীর টেক্কা খান

এসভি ডেস্ক: পলাতক অবস্থায় সাতক্ষীরার অন্যতম শীর্ষ যুদ্ধাপরাধী ও মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলায় ওয়ারেন্টভূক্ত আসামি জহিরুল ইসলাম ওরফে টেক্কা খান (৬৭) মারা গেছে।

একাত্তরে পাকিস্তানী হানাদারদের পক্ষে নৃশংসতার কারণে জহিরুল ইসলাম সবার কাছে সাতক্ষীরার ‘টিক্কা খান’ নামে পরিচিত। একাত্তরের এই কসাইয়ের মৃতদেহ গতকাল সোমবার ৩ টার দিকে তার গ্রামের বাড়ি বৈকারীতে আনা হয়েছে। তবে এত দিন তিনি কোথায় পালিয়ে ছিল তা জানা যায়নি। অনেকের ধারণা তিনি ভারতে পালিয়ে ছিলেন। জহিরুলের বাড়ির আঙিনা পার হলেই নদী পেরিয়ে ভারতের সীমানা শুরু।

উল্লেখ্য, ১৯৭১ এর মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে সাতক্ষীরার ৪ শীর্ষ যুদ্ধাপরাধী আলীপুরের আব্দুল্লাহিল বাকী, জামাতের সাবেক এমপি বৈকারীর আব্দুল খালেক মন্ডল, পলাশপোল নবজীবন এনজিওর সাবেক নির্বাহী পরিচালক খান রোকনুজ্জামান ও বৈকারীর জহিরুল ইসলাম ওরফে ‘টিক্কা’র বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে বিচার চলছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ গত ৬ মে ২০১৯ তারিখে শেষ হয়েছে। আসামিদের মধ্যে রোকন এবং জহিরুল শুরু থেকেই পলাতক।

আসামিদের বিরুদ্ধে হত্যা, ধর্ষণ, আটক, নির্যাতনসহ মানবতাবিরোধী অপরাধের সাতটি অভিযোগ আনা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে ৬ জনকে হত্যা, ২ জনকে ধর্ষণ, ১৪ জনকে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ আনা হয়েছে। আসামিদের বিরুদ্ধে ২০১৫ সালের ০৭ আগস্ট থেকে তদন্ত শুরু করে ২০১৭ সালের ০৫ ফেব্রুয়ারি শেষ হয়।


 

 




All rights reserved © Satkhira Vision

Design & Developed BY Asha IT