পাগলীর বাচ্চার বাবাকে খুঁজছে পুলিশ – Satkhira Vision

May 14, 2021, 9:23 am

সংবাদ শিরোনাম :
সাতক্ষীরা: ঈদ সামগ্রী নিয়ে অসহায়ের বাড়ি বাড়ি ছুটছেন সাঈদ হারানো টাকার ব্যাগ মালিককে ফিরিয়ে দিলেন পুলিশ সদস্য মোহায়মেনুল তালা: অসহায় মানুষের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করলেন সাংবাদিক নজরুল ইসলাম সাতক্ষীরা: এতিমদের সাথে ছাত্রলীগের ইফতার সাতক্ষীরা: সাপ্তাহিক সূর্যের আলোর উদ্যোগে কর্মহীন মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ স্ত্রী হত্যা মামলায় সাবেক এসপি বাবুল আক্তার গ্রেফতার সাতক্ষীরা: ভুল নাম্বারে চলে যাওয়া বিকাশের টাকা উদ্ধার করলো পুলিশ শ্যামনগর: আনসার ভিডিপি সদস্যদের মাঝে ঈদ শুভেচ্ছা প্যাকেজ বিতরণ তালাঃ হাজরাকাটীর সেলিম গাজীর পক্ষ থেকে ঈদ সামগ্রী বিতরণ  কলারোয়া: ফেনসিডিলসহ মহিলা মাদক ব্যবসায়ী আটক
পাগলীর বাচ্চার বাবাকে খুঁজছে পুলিশ

পাগলীর বাচ্চার বাবাকে খুঁজছে পুলিশ

এসভি ডেস্ক: সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার কাজিরহাট মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে আকষ্মিক এক বিকৃত সন্তানের জন্ম দেন মানসিক ভারসাম্যহীন এক নারী।

৪ এপ্রিল শুক্রবার দুপুরে এমন ঘটনার পর বিকৃত বাচ্চাটিকে উৎসুক জনতার ভিড় বাড়তে থাকেন। জন্মের কিছুক্ষণ পরই মারা যায় বাচ্চাটি। ঘন্টাখানেক মৃত বাচ্চাটিকে নিয়ে বিমর্ষ অবস্থায় বসে থাকেন মানুসিক ভারসম্যহীন ওই নারী। এরপর পার্শ্ববর্তী পুকুরে গোসল করে উধাও হয়ে যান।

এদিকে, শুক্রবার সন্ধ্যায় মৃত বাচ্চাটিকে উদ্ধার করে হেফাজতে নেয় পুলিশ। ৬ এপ্রিল শনিবার সকালে বাচ্চাটির পোষ্ট মর্টেমের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় কেরালকাতা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ মো. আব্দুল হামিদ সরদার বলেন, ভূমিষ্ঠ হওয়া বাচ্চাটি বিকৃত আকৃতির। হাত ও পা মানুষের মত হলেও গলার উপর থেকে অনেকটা ব্যাঙের মতো দেখতে। বাচ্চাটি সম্পূর্ণরূপে অস্বাভাবিক।

তিনি বলেন, ওই ভারসাম্যহীন নারী কথাবার্তা ঠিকমতো বলতে পারেন না। বাড়ির কোনো ঠিকানা নেই। কিছু জিজ্ঞেস করলেও উল্টাপাল্টা বলেন। ১০-১৫ দিন আগে কাজিরহাট এলাকায় আসেন তিনি। এরপর বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে বেড়ান। তবে আঞ্চলিক ভাষা যশোর জেলার কেশবপুর উপজেলার বলে ধারণা করা হচ্ছে। রাতে বন্ধ দোকানের সামনে ঘুমিয়ে থাকেন। তার পরিচয় খুঁজে বের করার চেষ্টা করছি। এছাড়া মৃত বাচ্চাটির বাবা কে সেটাও জানার চেষ্টা করছি। এমন জঘন্য ও নিকৃষ্টতম কাজের ক্ষমা হতে পারে না।

এ বিষয়ে কলারোয়া থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মনিরুজ্জামান বলেন, মৃত বাচ্চাটিকে ময়না তদন্তের জন্য সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ওই ভারসম্যহীন নারীকে ঘটনার পর থেকে খুজে পাওয়া যাচ্ছে না। ধারণা করছি, এ এলাকার কেউ এমন জঘন্যতম ঘটনার সঙ্গে জড়িত নয়। অন্য কোথাও থেকে গর্ভবর্তী হওয়ার পর আমার এলাকার মধ্যে সন্তান জন্ম দিয়েছে। ঘটনায় জড়িতকে খুঁজে পাওয়া কঠিন তবে মৃত বাচ্চটির বাবা কে খুজে পাবার চেষ্টা করছি।

ওসি আরও বলেন, এ ঘটনায় কেউ অভিযোগ দিলে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


 

 




All rights reserved © Satkhira Vision

Design & Developed BY Asha IT