এসভি ডেস্ক: মেয়ের আত্মহত্যার খবর শুনে স্ট্রোকে মৃত্যুর কোলে ঢোলে পড়লেন গর্ভধারণী মা।

আজ সকালে কলারোয়ার গাজনা গ্রামে এ হৃদয়বিদারক ঘটনাটি ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, বছর দশেক আগে প্রেমের সম্পর্কে গাজনা গ্রামের মতিয়ার সরদারের মেয়ে মুসলিমা খাতুনের বিয়ে হয় একই গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে জুয়েলের সাথে। তাদের ৭বছরের একটি ছেলে ও ৪বছরের একটি মেয়ে আছে। কিন্তু সম্প্রতি মুসলিমা (৩০) শারীরিকভাবে অসুস্থ্য হয়ে পড়লে পারিবারিক অশান্তির জেরে বৃহষ্পতিবার (২৮মার্চ) সকাল ৯টার দিকে ঘরের আড়ায় গলায় ফাঁস লাগিয়ে সে আত্মহত্যা করে। এ খবর তার (মুসলিমা) মা রহিমা খাতুন (৫৫) শুনতে পেয়ে স্ট্রোকে আক্রান্ত হন। তাৎক্ষনিক তাকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে নেয়া হলে বিকাল ৪টার দিকে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন।

মুসলিমার আত্মহত্যার ঘটনায় কলারোয়ায় থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে বলে থানা সূত্রে জানা গেছে।