পুলিশ পরিচয়ে দেবহাটা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার বাড়িতে অচেনা লোকের হানা – Satkhira Vision

March 4, 2021, 12:34 pm

সংবাদ শিরোনাম :
সাতক্ষীরা: ৫০ বোতল ফেনসিডিলসহ কাথন্ডার মাকফুর গ্রেফতার সাতক্ষীরা: করোনার টিকা নিলেন পিপি আব্দুল লতিফ সাতক্ষীরা: মাহিন্দ্রা চালকদের উপর বাস শ্রমিকদের হামলা, আহত ৮ কলারোয়া: ৯৯ বোতল ফেনসিডিলসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার কলারোয়া: জাতীয় ভোটার দিবস পালিত  কলারোয়া: ৩টি দোকানসহ একটি বাড়িতে অগ্নিকান্ডে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি শ্যামনগর: এবার কালভার্ট এর উপর পরিত্যাক্ত ব্যাগে মিললো জীবন্ত নবজাতক সাতক্ষীরা: বিদায়ী হাফেজদের পাগড়ি প্রদান করলো আল নূর ফাউন্ডেশন কলারোয়া: কাকডাঙ্গায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে জখম ৪ সাতক্ষীরা: গাঁজাসহ কুশখালীর প্রফেশনাল মাদক ব্যবসায়ী আজগর গ্রেফতার
পুলিশ পরিচয়ে দেবহাটা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার বাড়িতে অচেনা লোকের হানা

পুলিশ পরিচয়ে দেবহাটা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার বাড়িতে অচেনা লোকের হানা

বিশেষ প্রতিনিধি: পুলিশ পরিচয়ে অচেনা লোকজন হানা দেয়ার ঘটনা ঘটেছে দেবহাটা উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নাজমুন নাহারের সাতক্ষীরার বাড়িতে। তারা আসামী ধরার কথা বলে নাজমুন নাহারের প্রতিটি কক্ষে অনধিকার প্রবেশ করে। তাদের কাছে পরিচয় জানতে চাইলে নাজমুন নাহারের মাধ্যমিক পড়ুয়া কন্যা প্রজ্ঞা পারমিতার সাথে অসদাচরণ করে। এমন কী নিজেদের নামটাও বলতে অপরাগতা প্রকাশ করে।

ঘটনাটি ঘটে মঙ্গলবার বেলা সাড়ে বারটার দিকে সাতক্ষীরা শহরের শহীদ রীমু সরণি তথা সাতক্ষীরা সরকারি কলেজ রোডের বাসায়।

এঘটনাটি যখন ঘটে তখন দেবহাটা উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নাজমুন নাহার ছিলেন তার কর্মস্থলে আর তার স্বামী এসবিএসি ব্যাংকের সাতক্ষীরা শাখার ব্যবস্থাপক শহীদুর রহমানও ছিলেন কর্মস্থলে।
নাজমুন নাহার বলেন, সাতক্ষীরা শহরের শহীদ রীমু সরণি তথা সাতক্ষীরা সরকারি কলেজ রোডে দিন দুপুরে ও রাতে চুরি ডাকাতি ও নানা ধরনের অপরাধমুলক ঘটনা এর আগে ঘটেছে। যার ফলে স্থানীয় মানুষ নিজেদের উদ্যোগে সজাগ নামে একটি সংগঠন গড়ে তোলে। এ কারণে দিন দুপুরে সত্যিকার পরিচয় বিহীন এ ধরনের লোকজনের আগমন পরিবারের সদস্যদের মধ্যে আতংক  তৈরী করেছে।

নাজমুন নাহার ও শহীদুরের একমাত্র মেয়ে প্রজ্ঞা ইউনিসেফের সহযোগিতায় ও বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের পরিচালনায় গঠিত হ্যালোডট বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের শিশু সাংবাদিক প্রজ্ঞা পারমিতা জানায়, তিন মধ্য বয়সী পুরুষ নিজেদের পুলিশ বলে পরিচয় দিলেও বারবার তাদের পরিচয়ের প্রমাণ প্রদর্শন করতে অনুরোধ করা হলেও করেননি। শুধুমাত্র অস্ত্র আছে এটাই বলতে থাকে তারা।

ওই বাড়ির নীচের তলার ভাড়াটিয়া সাতক্ষীরা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক হারাধন কুমার আইচ শুভ’র স্ত্রী বিপাশা আইচ টুম্পা বলেন, তিনজন মটর সাইকেল আরোহী কলিংবেল চাপ দিয়ে ডেকে নিয়ে বাড়ির ক্লপসিবল গেট খুলতে বলে। তারা নিজেদেরকে পুলিশ দাবি করেন এবং আসামী ধরতে এখানে এসেছেন বলে জানান।

দেবহাটা উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা বলেন, এব্যাপারে তিনি সাতক্ষীরা সদর থানার ওসি মোস্তাফিজুরের সাথে কথা বললে তিনি জানান, ‘গোয়েন্দা পুলিশ তথা ডিবি’র পুলিশ গেলেও তার পরিচয় প্রমাণের স্বার্থে প্রমাণ পোষাক পরিধানের নিয়ম।’ অথচ যারা এসেছিলেন তাদের আচরণে পুলিশের পেশাদারিত্ব সুলভ আচরণ ছিল না। তিনি কারা এসেছিল তার বাসায় বের করার জন্য পুলিশ প্রশাসনের সহযোগিতা চেয়েছেন। পুলিশ প্রশাসন চাইলে সিসি ক্যামেরায় ধারণকৃত ফুটেজগুলো তিনি দিতে পারবেন। ইতিমধ্যে সেসব প্রস্তুত করা হয়েছে। 
এসবিএসি ব্যাংকের সাতক্ষীরা শাখার ব্যবস্থাপক শহীদুর রহমান জানান, তিনি এ ব্যাপারে একটি সাধারণ ডায়েরীর প্রস্ততি নিচ্ছেন।


 

 




All rights reserved © Satkhira Vision

Design & Developed BY Asha IT