সাইকেল চালিয়ে রাজিশাহীর তাবলীগ ইজতেমার পথে সাতক্ষীরা ৮১ বছরের বৃদ্ধ – Satkhira Vision

May 14, 2021, 11:21 am

সংবাদ শিরোনাম :
সাতক্ষীরা: ঈদ সামগ্রী নিয়ে অসহায়ের বাড়ি বাড়ি ছুটছেন সাঈদ হারানো টাকার ব্যাগ মালিককে ফিরিয়ে দিলেন পুলিশ সদস্য মোহায়মেনুল তালা: অসহায় মানুষের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করলেন সাংবাদিক নজরুল ইসলাম সাতক্ষীরা: এতিমদের সাথে ছাত্রলীগের ইফতার সাতক্ষীরা: সাপ্তাহিক সূর্যের আলোর উদ্যোগে কর্মহীন মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ স্ত্রী হত্যা মামলায় সাবেক এসপি বাবুল আক্তার গ্রেফতার সাতক্ষীরা: ভুল নাম্বারে চলে যাওয়া বিকাশের টাকা উদ্ধার করলো পুলিশ শ্যামনগর: আনসার ভিডিপি সদস্যদের মাঝে ঈদ শুভেচ্ছা প্যাকেজ বিতরণ তালাঃ হাজরাকাটীর সেলিম গাজীর পক্ষ থেকে ঈদ সামগ্রী বিতরণ  কলারোয়া: ফেনসিডিলসহ মহিলা মাদক ব্যবসায়ী আটক
সাইকেল চালিয়ে রাজিশাহীর তাবলীগ ইজতেমার পথে সাতক্ষীরা ৮১ বছরের বৃদ্ধ

সাইকেল চালিয়ে রাজিশাহীর তাবলীগ ইজতেমার পথে সাতক্ষীরা ৮১ বছরের বৃদ্ধ

এসভি ডেস্ক: ৮১ বছরের বৃদ্ধ জয়নাল আবেদিন। ২০০৪ সাল থেকে প্রতিবছর সাইকেলে চড়ে অংশ নেন রাজশাহীর তাবলিগ ইজতেমায়। দু’দিনের তাবলিগ ইজতেমা শেষে আবারও সাইকেলে চড়ে ফিরে আসেন তিনি।

এবছরও তার ব্যতিক্রম হয়নি। শনিবার প্রত্যুষে একটি নতুন সাইকেল নিয়ে রওনা হয়েছেন রাজশাহীর উদ্দেশ্যে। সাতক্ষীরা থেকে রাজশাহী পর্যন্ত সড়ক পাড়ি দিতে তার সময় লাগবে তিনদিন। একটি ফেরিও পর হতে হবে তাকে।

৮১ বছরের জয়নাল আবেদিন এতোদিন ব্যবহার করতেন একটি পুরনো সাইকেল। এবার তিনি হাতে পেয়েছেন সাড়ে পাঁচ হাজার টাকা মূল্যের একটি নতুন সাইকেল। সাতক্ষীরা সদর উপজেলার বাঁশদহা ইউনিয়নের কাওনডাঙ্গা গ্রামের জয়নাল আবেদিন চার ছেলে ও চার মেয়ের বাবা।

আরো পড়ুন: ’যারাই সমাজের শান্তি নষ্ট করার চেষ্টা করবে তাদের কঠোর হস্থে দমন করা হবে’:ওসি দেবহাটা

এতদূর গেলেও চলার পথে তার কোনো সঙ্গী থাকছে না। সাথে তিনি রেখেছেন স্থানীয় চেয়ারম্যানের দেওয়া প্রত্যয়নপত্র। আছে কিছু শুকনো খাবার, রুটি,পানি ও স্যালাইন ছাড়াও কয়েকটি ব্যথার ট্যাবলেট। কাছে আছে সামান্য কিছু টাকা। সাইকেলে হাওয়া দেওয়ার পাম্পারটিও রয়েছে তার কাছে। সাইকেলের হ্যান্ডেলে লাগিয়েছেন একটি ব্যানার।

যাওয়ার আগে সাংবাদিকদের সাথে আলাপচারিতায় তিনি বলেন, আমার অভ্যাস সাইকেল চড়ায়। বাসে চড়লে পা ফুলে যায়। তিনি বলেন সাইকেলে আমি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করি। এতে আমার কোনো কষ্ট হয়না। সাইকেল চড়তে আনন্দ পাই।

তিনি বলেন, চার বছর আগে আমার স্ত্রী মারা গেছে । বাড়িতে আছেন ছেলের বউ সাথী বেগমসহ নাতি পুতিরা। দোয়া শেষে তারা আমাকে বিদায় জানিয়েছেন । পাড়ার লেকজনও দোয়া করেছেন।

রাতে কোথায় থাকবেন এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, শনিবার রাতে ঝিনাইদহর কোনো মসজিদে রাত্রি যাপন করবো। রোববার প্রত্যুষে আবারও রওনা হয়ে পৌছাবো লালন শাহ ব্রীজের অপরপ্রান্তে পাবনা জেলার পাকশিতে। সোমবার কাকডাকা ভোরে আবারও রওনা হয়ে গন্তব্যস্থল রাজশাহীর নওদাপাড়ায় ইজতেমার ময়দানে পৌছে যাবো বলে আশা করছি।

আরো পড়ুন: দেবহাটা থানা পুলিশের অভিযানে ইয়াবাসহ কুলিয়ার আলামিন আটক


 

 




All rights reserved © Satkhira Vision

Design & Developed BY Asha IT