এসভি ডেস্ক: সমাজকল্যাণমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ বলেছেন, আমার মন্ত্রণালয়ের কোনও কর্মকর্তার কোনও ধরনের দুর্নীতি পেলে তার আর কোনও রক্ষা থাকবে না। দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের ধরে ধরে বিচার করা হবে।

রবিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে সমাজসেবা অধিদফতরে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের নবনিযুক্ত মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও সচিবকে সংবর্ধনা প্রদান অনুষ্ঠানে নুরুজ্জামান আহমেদ এসব কথা বলেন।

সমাজকল্যাণমন্ত্রী বলেন, ‘দেশ থেকে দুর্নীতি বিদায় করতে পারলে আগামী ৫ বছরে বাংলাদেশ নিঃসন্দেহে মালয়েশিয়াকে ছাড়িয়ে যাবে।’

তিনি বলেন, ‘বিশ্বের দুর্নীতিগ্রস্ত কোনও দেশই উন্নতির শিখরে পৌঁছতে পারে না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে উন্নতির শীর্ষে নিয়ে যেতে বদ্ধ পরিকর। এ জন্য তিনি আগামীদিনের উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে দিয়েছেন। ২০৪১ সালের মধ্যেই বাংলাদেশকে তিনি উন্নত দেশে পরিণত করতে চান। আর এ জন্য তিনি দেশ থেকে দুর্নীতি নামক দানবকে চিরতরে বিদায় দিতে মাঠে নেমেছেন। আমাদেরও (মন্ত্রিপরিষদ) সে নির্দেশনাই দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী দেশকে ধুয়েমুছে পরিষ্কার করতে পারলে আমরা অন্তত তাকে পানিটুকু তো এগিয়ে দিতে পারবোই।’

অনুষ্ঠানে সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ বলেন, ‘সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতি সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরাসরি নির্দেশনা রয়েছে। আমাদের সেই নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ করতে হবে।’

সমাজসেবা অধিদফতরের মহাপরিচালক গাজী মুহাম্মদ নূরুল কবীরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব জুয়েনা আজিজ ও অতিরিক্ত সচিব সুশান্ত কুমার প্রামাণিকসহ মন্ত্রণালয়ের সব পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।