কালিগঞ্জ প্রতিনিধি: কালিগঞ্জের মথুরেশপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ফয়সাল হোসেন(২১)কে (৩০ নভেম্বর) রাত সাড়ে ১০ টার দিকে কুপিয়ে মারাত্মকভাবে জখম করেছে দূর্বৃত্তরা।

এব্যাপারে ফয়সাল হোসেনের মামা মীর সুলতান বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়,  ঈশ্বরপুর গ্রামের মাকলুকাত হোসেনের ছেলে ফয়সাল হোসেন শুক্রবার রাতে ব্যাটমিন্টন খেলা দেখে বাড়ি ফেরার পথে প্রবাজপুর গ্রামের ডা.রুহুল আমিনের বাড়ি পাশে পৌছালে পূর্বশত্রুতার জের হিসেবে ওৎ পেতে থাকা দূর্বৃত্তরা মুখে কালো কাপড় বেঁধে ফয়সাল হোসেনের চলার পথ গতি রোধ করে দা দিয়ে তার মাথায় কোপ মারলে মাথার মধ্য স্থলে হাড় কাটা গুরুতর জখম হয়। এসময় সে হাত দিয়ে ঠেকাইতে গেলে তার হাতেও দায়ের কোপ লাগে। এছাড়া দুর্বৃত্তরা তার পায়ের রগ কাঠবে বলে পায়ে কোপ মারে।

ফয়সাল হোসেনের চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে দুর্বৃত্তরা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। আশংখ্যাজনক অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে কালিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

কালিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প.প কর্মকর্তা ডা.তৈয়েবুর রহমান জানান,ফয়সাল হোসেনের মাথায়,হাত ও পায়ে কোপের চিহ্ন পাওয়া গেছে। বর্তমানে সে আশংকামুক্ত এবং তার সুচিকিৎসা চলছে।

কালিগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হাসান হাফিজুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এব্যাপারে থানায় মামলা হয়েছে। আসামিদেরকে আটকের চেষ্টা চলছে।