নববধূকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ! – Satkhira Vision

April 11, 2021, 8:49 pm

সংবাদ শিরোনাম :
শ্যামনগর: ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বন্ধ হল বাল্যবিবাহ শ্যামনগর: উপকূলের ক্ষতিগ্রস্থ মানুষকে ফ্রি স্বাস্থ্য সেবা প্রদান কলারোয়া: সেবার দাফন টিমের সদস্যদের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত সাতক্ষীরা: বন্ধুকে জবাই করে নিজের বাবাকে জানায় খুনি সাগর! সাতক্ষীরা: গাঁজা ক্রয়ের ২০০ টাকার জন্য বন্ধুকে জবাই করে খুন করে সাগর দেবহাটা: দূর্ঘটনায় নিহতের পরিবারের পাশে আওয়ামী লীগ নেতা বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমস-এ রৌপ্য পদক জয়ী দেবহাটার ইয়াছিন সাতক্ষীরা: একসাথে নেশা করতে যেয়ে কাশেমপুরে বন্ধুর চুরিকাঘাতে কিশোর নিহত কলারোয়া: বালিয়াডাঙ্গা বাজারে অগ্নিকাণ্ডে ৬ দোকান ভষ্মিভূত কলারোয়া: মুখ চেপে ধরে শিশুকে বলৎকার, রক্তক্ষরণ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি
নববধূকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ!

নববধূকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ!

এস ভি ডেস্ক: কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলার ওসমানপুর ইউনিয়নের রমানাথ পুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সংজ্ঞাহীন অবস্থায় নববধূকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার ওসমানপুর ইউনিয়নের রমানাথ পুর গ্রামের হাবিবর রহমান শেখের ছেলে দবির শেখ ও তার সঙ্গীরা কোমরভোগ পশ্চিমপাড়ার এক কৃষকের মেয়েকে দীর্ঘদিন ধরে উত্ত্যক্ত করে আসছিল।

স্থানীয় নেতাদের কাছে বিচার চেয়ে প্রতিকার না পেয়ে অবশেষে কিছুদিন আগে পাশের গ্রামে মেয়েকে বিয়ে দেয় পরিবার। শনিবার সকালে নববধূ বাবার বাড়ি থেকে স্বামীর বাড়িতে যাচ্ছিল।

পথিমধ্যে দবির ও তার সঙ্গীরা তাকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এ ঘটনার দুইদিন পর সোমবার সকালে অপহরণকারীরা একটি মোটরসাইকেলে করে নববধূকে তার বাবার বাড়ি ফেলে রেখে যায়।

পরিবারের লোকেরা গুরুতর অসুস্থ নববধূকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। অবস্থা গুরুতর দেখে তাকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে পাঠান চিকিৎসকরা।

নববধূর চাচা বলেন, বাড়িতে ঘর তোলার কাজে গিয়ে রাজমিস্ত্রি দবির আমাদের মেয়েকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। মেয়ের পরিবার রাজি না হওয়ায় তাকে নানাভাবে উত্ত্যক্ত করতে থাকে দবির।

একপর্যায়ে মেয়েকে অন্যত্র বিয়ে দেয়া হয়। এতেও রক্ষা হলো না। প্রথম থেকে আমরা দবিরের বিরুদ্ধে গ্রামের নেতাদের কাছে বিচার দিয়েছি। কিন্তু বিচার পাইনি। দবির তার ঘোষণা অনুযায়ী মেয়েকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ করে বাড়িতে ফেলে যায়।

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নির্যাতিত নববধূকে দেখতে যাওয়া ওসমানপুর ইউনিয়ন পরিষদের নারী সদস্য সাবিনা পারভীন বলেন, প্রভাবশালী রাজমিস্ত্রি দবির ও তার সঙ্গীরা ঘোষণা দিয়ে এই নববধূকে অপহরণ করে গণধর্ষণের পর বাড়িতে ফেলে যায়। আমি এর কঠিন বিচার চাই।

এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক আশরাফুল আলম বলেন, গৃহবধূর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হচ্ছে। গৃহবধূর মেডিকেল করার জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

খোকসা থানা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) তালুকদার আসাদুজ্জামান বলেন, এ ঘটনায় জড়িত প্রত্যেককে দ্রুতসময়ে গ্রেফতার করা হবে।


 

 




All rights reserved © Satkhira Vision

Design & Developed BY Asha IT